কর্ণফুলীতে শিশু আয়াত হত্যার বিচার ও নারী নির্যাতন বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সারা আনোয়ারা

শিশু আয়াত হত্যা সহ সারাদেশে নারী ও শিশু নির্যাতন, ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের দ্রুত বিচার ও শাস্তির দাবিতে চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে মানববন্ধন করেছে কালের কন্ঠ শুভ সংঘ নামের একটি সামাজিক সংগঠন।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার মইজ্জ্যারটেক চত্বরে এ মানববন্ধন হয়।

এ সময় বক্তরা বলেন, প্রতিনিয়ত শিশুরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। বিচারের দীর্ঘসূত্রতার জন্য বেড়ে যাচ্ছে শিশু ধর্ষণের মতো ঘটনা। শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং নিপীড়নকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমদ, কর্ণফুলী উপজেলা কালের কন্ঠ শুভ সংঘের সভাপতি শারমিন মনি, কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, ইঞ্জিনিয়ার হাসমত আলী, কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম হৃদয়, শাহনাজ বেগম, মহিউদ্দিন আলাভী, আলী ইবনে আব্বাস, আরাফাত হোসেন রিয়ান,এমদাদুল হোসেন রুবেল, হায়দার কবির আয়রান, জাফর আহমদ আরিফ, মোঃ রাসেল, জান্নাতুল নাহার রিয়া, কাউসার আক্তার ইভা। এছাড়াও এতে অংশ নেন বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্যরা।

আয়াত হত্যার বিচারের দাবীতে বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি দেওয়ার কথা জানিয়েছেন বক্তারা।

উল্লেখ, গত ১৫ নভেম্বর চট্টগ্রামের ইপিজেড থানার বন্দরটিলার নয়ারহাট বিদ্যুৎ অফিস এলাকার বাসা থেকে পার্শ্ববর্তী মসজিদে আরবি পড়তে যাওয়ার সময় নিখোঁজ হয় আলিনা ইসলাম আয়াত। পরদিন এ ঘটনায় ইপিজেড থানায় নিখোঁজের ডায়েরি করেন তার বাবা সোহেল রানা।

নিখোঁজের ১০ দিনের মাথায় আবীর নামে এক যুবককে গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে এই ঘটনার রহস্য উদঘাটনের তথ্য জানিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যে ছয় বছর বয়সী এ শিশুটিকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ছয় টুকরা করে তা কাট্টলী সাগরপাড়ে ফেলে দেওয়ার কথা ওই পাষণ্ড স্বীকার করেছে বলেও জানিয়েছে পিবিআই।

Related posts