জাতিসংঘ পাবলিক সার্ভিস’ অ্যাওয়ার্ড পেল ভূমি মন্ত্রণালয়

ডেস্ক রিপোর্ট – বাংলাদেশে ই-নামজারি (‘ই-মিউটেশন’) বাস্তবায়নের স্বীকৃতি স্বরূপ ‘স্বচ্ছ ও জবাবদিহিতামূলক সরকারি প্রতিষ্ঠানের বিকাশ’ ক্যাটাগরিতে মর্যাদাপূর্ণ ‘ইউনাইটেড নেশন্স পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়াড- ২০২০’ অর্জন করল ভূমি মন্ত্রণালয়।

জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক বিষয়ক বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ল্যু জেনমিন কর্তৃক জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমাকে প্রদত্ত এক চিঠির বরাত দিয়ে আজ আনুষ্ঠানিক ভাবে ভূমি মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি জানায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

জাতীয় ও বৈশ্বিক সম্প্রদায়ের জন্য প্রদত্ত সেবার গুণগত মান ও উৎকর্ষ উদযাপনের উদ্দেশ্যে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ রেজ্যুলেশন নম্বর ৫৭/২৭৭-এর মাধ্যমে ২৩ জুনকে ‘জাতিসংঘ পাবলিক সার্ভিস দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করে। প্রতিবছর ২৩ জুন, যথাযোগ্য আনুষ্ঠানিকতার সঙ্গে জাতিসংঘ দিবসটি উদযাপন করে, এবং এসময় বিশ্বজুড়ে পাবলিক (সরকারি) খাতে গৃহীত সর্বোত্তম উদ্ভাবনী উদ্যোগ সমূহকে পুরস্কারের মাধ্যমে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রাপ্ত মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “জাতিসংঘ থেকে স্বীকৃতি পাওয়া আমাদের জন্য নিঃসন্দেহে বেশ আনন্দের। বিশ্বের অনেক দেশের বিভিন্ন উদ্যোগ থেকে যাচাই বাচাই করে জাতিসংঘ আমাদেরকে পুরস্কৃত করেছে। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের এ ধরনের অর্জন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের দূরদর্শী উদ্যোগের কারণে সম্ভব হচ্ছে। তাঁর নির্দেশনায় আমাদের সকলের দলগত প্রচেষ্টায় আজকের এ অর্জন। ভূমিমন্ত্রী আরো বলেন, ”আমরা এখানে থেমে থাকতে চাই না।

আমি মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয়ার পর বলেছিলাম ভূমি মন্ত্রণালয়কে টপ ফাইভে নিয়ে যেতে চাই। এ অর্জন আমাদের পথ চলতে উৎসাহ যোগাবে।”

Related posts