বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে সামাজিক সংগঠনের ফ্রন্ট লাইনারদের জন্য: সিএমপি কমিশনার

নিজস্ব প্রতিনিধি
সারা আনোয়ারা

করোনার দ্বিতীয় ধাপের সংক্রমণ মোকাবিলায় সাধারণ মানুষ যাতে যথাযথভাবে মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি মানে এমন কর্মসূচি নিয়ে আবারো মাঠে নেমেছে ‘চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন সামাজিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদ’।

২৫ নভেম্বর (বুধবার) দুপুর ১২টায় কর্ণফুলী উপজেলার ‘হল টোয়েন্টি ওয়ান’ এ ভূমিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপির অনুপ্রেরণায় মাস্ক বিতরণ ও পরিধানে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি পালন করা হয়।

সাধারণ মানুষের সচেতনতায় এতে সংগঠনের আহ্বায়ক লায়ন হাকিম আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর।

প্রধান অতিথি বলেন, ‘আমাদের জীবনে নতুন একটি জিনিস চলে এসেছে। মুখে মাস্ক পরিধান করতে হয়। হাসিমুখে আছি না ঘোমড়া মুখে আছি, বুঝায় যায় না। কিছুদিন আগে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটি বিষয় খুব সরাসরি সজোরে বলেছেন, মাস্ক বাধ্যতামূলক। নো মাস্ক, নো সার্ভিস। নির্দেশনাও রয়েছে, মাস্ক না পারলে যেনো সরকারি সেবা দেওয়া না হয়। সারা পৃথিবীতে করোনা একটি স্থায়ী প্রভাব ফেলে দিয়েছে। পুরো বিশ্বের মতো বাংলাদেশ ও তার বাহিরে নয়।
বাংলাদেশ অন্যান্য দেশের চেয়ে অনুন্নত থাকার পরও দুর্বলতম কোন ম্যাজিকের কারণে এটি ঠেকিয়ে দিয়েছে। কি সেই ম্যাজিক? সেই ম্যাজিক হলো আমাদের মানুষ। মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব কিন্তু কেন? পশুপাখি অন্যায় ও অপরাধ করেনা। তারপরেও মানুষ শ্রেষ্ঠ। এর একটিই কারণ মানুষেই একমাত্র অন্যের জন্য নির্দ্ধিধায় নিজের জীবন দিয়ে থাকেন।’

নবাগত সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, ‘অন্যের জন্য নিজের জীবন বিলিয়ে দিয়ে এই মহামারি করোনা দূর্যোগেও বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে চরপাথরঘাটা সামাজিক সংগঠনের মতো অনেক ফ্রন্ট লাইনারদের জন্য। যারা করোনাকালে দেখিয়ে দিয়েছে বাঙালি বীরের জাতি। যে রকম ছিলো আমাদের মুক্তিযুদ্ধ। বঙ্গবন্ধুর ডাকে কোন চিন্তা ভাবনা না করে দেশকে স্বাধীন করার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছিলো।’

সিএমপি কমিশনার আরো বলেন, ‘বিশ্বের সেরা ১০ টি প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নশীল দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি। এই ঘুরে দাঁড়ানোর কারণ হলো আমরা করোনার সাথে অভিযোজিত করেছি। মাস্ক এখন অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যা অবশ্যই পরতে হবে। করোনাকে ভয় না পেয়ে ফেইস করতে হবে। কিছু রোলস ও প্রিভেন্ট মানতে হবে। সহজ উপায় হলো মাস্ক পরা। আমরা সুস্থ্য থাকলে আমাদের সব চলবে। করোনা মোকাবিলা করে বিশ্বের অন্যান্য দেশকে আমরা দেখিয়ে দেবো বাঙালি বীরের জাতি। সরকারের ভিশন ২০৪১ সাল যেনো আমরা সফল করতে পারি। আর সামাজিক সচেতনতায় এমন একটি সুন্দর অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য চরপাথরঘাটা সামাজিক সংগঠনকে সিএমপির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

অনুষ্ঠানে সিএমপি কমিশনারকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন সংগঠনের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইন্জিনিয়ার ইসলাম আহমেদ, সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক এমএ মারুফ, প্রধান স্বাস্থ্য সমন্বয়ক
মার্শাল মনির আহমেদ।

সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথিকে ক্রেস্ট উপহার তুলে দেন ডায়মন্ড সিমেন্ট লিমিটেড এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আজিম আলী, লায়ন হাকিম আলী ও ছাফা গ্রুপ অব কোম্পানীর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এমএন ছাফা।

এইসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ট্রাফিক শ্যামল কুমার নাথ,মিলন মাহমুদ,ডিসি ট্রাফিক শহীদুল্লাহ,কর্ণফুলী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার এসি ইয়াসির আরাফাত,কর্ণফুলী থানার ওসি দুলাল মাহমুদ।

সদস্য সচিব মুহাম্মদ সেলিম হকের সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের যুগ্ম সচিব ফরিদ জুয়েল, অর্থ কমিটির সচিব সেলিম খান, সমন্বয়ক আলী হায়দার, মহিউদ্দিন মন্জু, ছাবের আহমদ, এমএন আক্তারসহ প্রমুখ। মঞ্চের সামনে বিভিন্ন ক্যাটাগরি সারিতে ছিলেন শিক্ষক-শিক্ষিকা, মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,স্থানীয় প্রতিনিধি, শ্রমিক প্রতিনিধি, সিএনজি চালক, মালিক সমিতির প্রতিনিধি, বাজার কমিটির প্রতিনিধি, রিক্সা-অটোরিক্সা সমিতির প্রতিনিধি, সাম্পান মালিক প্রতিনিধিগণ।

প্রসঙ্গত, বিগত সময়ে করোনা মোকাবেলায় চরপাথরঘাটা সামাজিক সংগঠনের সফলতা উদাহরণ হিসেবে নিয়েছে বহু ইউনিয়ন ও সংগঠন। মানুষকে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানা নিশ্চিত করতে ও কভিড-১৯ ভাইরাস মোকাবেলায় সাফল্য দেখিয়েছে চরপাথরঘাটার এই সংগঠন।

Related posts