সাইফুলের রক্ত সংগ্রহ ও আনুষঙ্গিক খরচ সারা আনোয়ারার উদ্যোগের সাথে এবার পাশে দাঁড়ালেন ব্যবসায়ী শাহজাহান

নিজস্ব প্রতিনিধি – আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নের থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত রোগী সাইফুল ইসলামের ( ১২) রক্তদান , রক্ত সংগ্রহ ও আনুষঙ্গিক খরচের আজীবন দায়িত্ব নিলো আনোয়ারার অন্যতম সামাজিক সংগঠন সারা আনোয়ারা।

তাদের এই মহতী উদ্যোগের কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানার পর, গত মাসে নিজ থেকে সাইফুলের ১ মাসের রক্তদান আনুষঙ্গিক খরচ বহন করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন আনোয়ারা উপজেলার চাতরী চৌমুহনী ব্যবসায়ী শাহজাহান চৌধুরী।

সে অনুযায়ী আজ সাইফুলের রক্তদানের আনুষঙ্গিক খরচ ৩৫০০ টাকা , তার চাচী টুমপা খানমের হাতে তুলে দেন। এসময় নানা ভাবে সহযোগীতা ও পাশে ছিলেন আনোয়ারা ব্লাড ব্যাংকের স্বেচ্ছাসেবক মহিউদ্দিন।
সারা আনোয়ারার পক্ষে ছিলেন এইচ এম মহিউদ্দিন মনজুর, নেজাম উদ্দিন, নিজাম শেওয়ানা, মোহাম্মদ বোরহান ও এবার সাইফুলকে রকদানকারী মোহাম্মদ ফয়সাল।

উল্লেখ্য থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নের ০৩নং ওয়ার্ডের, সিরাজ মাঝি বাড়ির নাজিম উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলামকে আন্দরকিল্লা রেডক্রিসেন্ট হাসপাতালে প্রতি মাসে একবার তাকে ও+ (পজেটিভ) রক্ত দিতে হয়।

৬ বছর বয়সে মা হারা ১২ বছর বয়সী সাইফুল ইসলাম, বাবা অন্যত্র সংসার নিয়ে ব্যস্ত, আপন চাচী হাসনা খানম টুম্পা’র বদন্যতায় মায়ের আদরে লালিত হচ্ছে সে ৷ সাইফুল আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নের ০৩নং ওয়ার্ডের, সিরাজ মাঝি বাড়ির নাজিম উদ্দিনের ছেলে । দুই ভাইয়ের মধ্যে ছোট সাইফুল। সে শহীদ বশরুজ্জামান উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর (ক) শাখার ছাত্র।

এজন্য মেডিকেলে ভর্তি ফি,রক্ত সঞ্চালন ফি,গাড়ি ভাড়া সহ প্রতি মাসে ৩০০০ থেকে ৩৫০০ টাকা খরচ হয় ৷ ইতিমধ্যে সারা আনোয়ারা গত ১৯ মাসে ১৯ বার সাইফুলের রক্তদান ও সংগ্রহের কাজটা করে আসছে। এবার রক্তদান ও রক্ত সংগ্রহের পাশাপাশি তার রক্তদান আনুষঙ্গিক মেডিকেল ও যাতায়াতের সব খরচও প্রতি মাসে বহন করার দায়িত্ব নিলো সারা আনোয়ারা পরিবার।

Related posts