আনোয়ারায় ছেলের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে বাবা মায়ের সংবাদ সম্মেলন!

নিজস্ব প্রতিনিধি – আনোয়ারা উপজেলার ৫ নম্বর বরুমচড়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আলহাজ্ব মনির আহমদ এবং তার স্ত্রী জাহানারা বেগম আপন সন্তান সুলাইমানের বিরুদ্ধে নির্যাতন এবং প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে আজ ২২ ডিসেম্বর রোববার সকাল ১১ টায় আনোয়ারার একটি কমিনিউটি হলে সংবাদ সম্মেলন করেন।

এ সময় মনির আহমদ কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন কয়েক বছর যাবত আমার ছেলে মাদক সেবনকারী সুলাইমান এর সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও অন্যায়ভাবে জায়গা জমি রেজিস্ট্রি করে দিতে বাধ্য করালে আমি তাতে রাজি না হওয়ায় আমার এবং আমার স্ত্রীর উপর আজ তিন বছর যাবত অমানবিক নির্যাতন করে আসতেছে।

তিনি বলেন সর্বশেষ গত ১ডিসেম্বর সোলায়মান পুনরায় কাতার প্রবাস থেকে এসে আগের মত আমার এবং আমার স্ত্রীর উপর সন্ত্রাসী হামলা এবং ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন,যাতে আমরা কোন কারো সাথে যোগাযোগ করতে না পারি, আমরা কোন রকমে আমার ছেলে ওসমানের শশুরের সাহায্যে তালাবদ্ধ ঘর থেকে পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছি। বর্তমানে তার ভয়ে আমরা গৃহহীন হয়ে বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজন এবং হালিশহর হুজুরের দরবারে বাস করে আসতেছি।

আমার অন্য দ্বিতীয় ছেলে প্রবাসী মোহাম্মদ ওসমানকে বিভিন্ন প্রকার প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসতেছে এবং তার স্ত্রী রুমা আক্তার কে তার দাবী দাওয়া মেনে না নিলে তাকে এবং তার সন্তানকে সহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসতেছে।

সুলাইমানের ভাই মোহাম্মদ ওসমানের স্ত্রী রুমা আক্তার জানান সোলাইমান বিভিন্ন সময় ঘরে এসে বিভিন্ন রকমের কটুক্তি এবং তার নামে সব জায়গা রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার জন্য আমার স্বামীকে বলতে বাধ্য করালে আমি তাতে রাজি না হওয়ায় আমাকে এবং আমার অবুঝ সন্তানকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসতেছে।

থানায় কোন অভিযোগ করেছেন কিনা জানতে চাইলে মনির আহমেদ বলেন আমরা যে এলাকায় আসছি সেটা জানলে সে আমাদের উপর হামলা করবে বলে হুমকি দেওয়ায় আমরা মামলা করতে পারিনি কিন্তু আজ আমরা কয়েকজনের সহযোগিতা পেয়ে আজকে সাংবাদিক সম্মেলন করার পরে থানায় সোলায়মান এর বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করব এবং অতি দ্রুত সুলাইমানকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি এবং তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী মনির আহমদের ছেলে সুলাইমানের নিকট মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার বাবার সাথে আমার অভিমান হয়েছে সেটা সত্যিকারন আমার বাবা আমরা তিন ভাইয়ের মধ্যে সবাইকে সমানভাবে দেখেন নাই উনি আমার ভাই ওসমানকে পাঁচ গন্ডা জমি রেজিস্ট্রি করে দিয়েছে যেটাতে আমি ভাই হিসেবে আবার অধিকার রয়েছে এবং আমি যে মাদকসেবী বা আমি উনাদেরকে নির্যাতন নির্যাতন করেছি এটার কোনো প্রমাণ নেই,যেটা আমার এলাকাবাসী আপনাদের সাক্ষ্য দিবে।

আমার বিরুদ্ধে শত্রু লেগেছে যারা আমার ভাই ওসমানের শ্যালক এবং তার শ্বশুর সহ মিলে আমার বিরুদ্ধে লেগেছে কারণ আমি আমার ভাই ওসমানের শ্যালক এর কাছে দুই লক্ষ টাকা এখনো পাওনাদার, অতএব আমার পাওনা টাকা না দেওয়ার জন্য আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত সৃষ্টি করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

Related posts