আনোয়ারায় ঘুষ নিতে গিয়ে ২০ হাজার টাকাসহ স্যাটেলমেন্ট অফিসের সার্ভেয়ার আটক

আনোয়ারায় ঘুষ নিতে গিয়ে ২০ হাজার টাকাসহ স্যাটেলমেন্ট অফিসের সার্ভেয়ার আটক।

সারা আনোয়ারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
০৫-০৯-১৯

আনোয়ারায় ঘুষের ২০ হাজার টাকাসহ ডিজিটাল ভূমি জরিপের সার্ভেয়ার শহীদুল হককে আটক করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

গতকাল ৪ সেপ্টেম্বর বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চাতরী চৌমুহনী বাজার এলাকায় ভূমি জরিপ সংক্রান্ত নিয়ে টাকা লেনদেনের সময় শহিদুল হককে আটক করা হয়।

দুদক চট্টগ্রাম-১ এর উপ-পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন এবং তিনি জানান- আমরা অভিযোগ পেয়েছি উপজেলার বটতলী গ্রামের পূর্ব তুলাতলী মৌজার ডিজিটাল ভূমি জরিপ কাজে ভূমি মালিকদের কাছ থেকে টাকা দাবি করা হচ্ছে।

তিনি জানান, জরিপ কাজে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে জেলা প্রশাসক ও দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) বরাবরে অভিযোগ করে স্থানীয়রা।

এ অভিযোগের ভিত্তিতে ঘুষের লেনদেনের ২০ হাজার টাকাসহ সার্ভেয়ার মো. শহীদুল হককে চাতরী চৌমুহনী বাজার থেকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে।

সুত্রে জানা যাই প্রায় এলাকার জরিপ নিয়ে অনেক অভিযোগ করেন এলাকাবাসী, এমনকি একটি পুকুর ১৮ জনের নাম খতিয়ানে থাকলে সার্ভেয়াররা ৮ জনের নামে রেকর্ড করার নজিরও পাওয়া গিয়েছিল এবং বারশত চালিতালী গ্রামেও রাস্তার চলাচলপথ অন্যের নামে রেকর্ড করে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

প্রায় এলাকার লোকজন অভিযোগ করে বলেন- সার্ভেয়ারদের সাথে এলাকার কিছু ভূমিদস্যু জড়িত রয়েছে এবং তারাই সে সার্ভেয়ারদের ঘুষের টাকার ব্যবস্থা করতে সহযোগিতা করে আর তারাও সেই ঘুষের টাকা ভাগ পাই।

ভূমিদস্যুরা তাদেরকে লোভেরর পথ দেখিয়েছে, তাই তাদের শনাক্ত করে সুষ্ঠু জরিপ রেকর্ড পরিচালনা করার আহবান করেন।

এই জরিপ নিয়ে সুষ্ঠুতা করার জন্য দফায় দফায় উপজেলাতে বৈঠক হলেও সার্ভেয়ারদের লোভ লালসা কমেনি।

সেই জরিপকর্মীরা জমি খাস অথবা প্রকৃত মালিক বাদ দিয়ে অন্যের নামে রেকর্ড দেওয়ার ভয় দেখিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে মোটা অংকের টাকা।

এ ব্যাপারে আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও জরিপ পরিচালনা কমিটির সভাপতি শেখ জোবায়ের আহমেদ বলেন,
দুর্নীতির অভিযোগে ঘুষের টাকাসহ সার্ভেয়ার মো. শহীদুল হককে হাতেনাতে আটক করেছে দুদক। ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ আর কারো পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related posts