নতুন পাঞ্জাবী পড়ে ঈদ করা হল না, দশম শ্রেণির ছাত্র আলভীর

মোঃ মহিউদ্দিন – সাহরি খেয়ে ফজরের নামাজ পড়ে ঘুম থেকে উঠে এক পাশের বাড়িতে প্রাইভেট পড়তে গেয়েছিল সাইফুল আলম আলভী ওখান থেকে তার মা ডেকে পাঠাল ঈদের জন্য নতুন পাঞ্জাবী সেলাই করতে দর্জীকে মাপ দেওয়ার জন্য।
প্রাইভেট টিচার আনিসুর রহমান থেকে ক্ষনিকের জন্য ছুটি নিয়ে গেল বাড়িতে দর্জি মাপ নিবে এমন সময়ে মাথা ঘুরিয়ে মাটিতে পড়তেই ধরে পেলল দর্জী নুরুল ইসলাম (হাসু)।
কে জানত এই পড়াই যে আলভীর শেষ বিদায় হবে?
বলছিলাম চট্টগ্রাম কর্ণফুলী উপজেলার দৌলতপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র সাইফুল আলম আলভী (১৮),র কথা।
সাইফুল আলম আলভি (১৮) আজ শনিবার (০১ই মে) দুপুর সাড়ে বারোটায় স্ট্রোক করলে প্রথমে আনোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি দেখে দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে তাঁকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
সাইফুল আলম আলভি (১৮)কর্ণফুলী উপজেলার ২নং বড়উঠান ইউনিয়ন পরিষদের ০৯ নং ওয়ার্ডের ডাকপাড়া গ্রামের তরিক আহমদ সওদাগরের বাড়ির মোঃ শাহ আলমের একমাত্র পুত্র। সে একই ইউনিয়নের দৌলতপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র।
আজ শনিবার (০১ মে) ডাকপাড়া জমিয়তুল মামুর জামে মসজিদ মাঠ প্রাঙ্গণে মরহুমের জানাজার নামাজ শেষে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।
এদিকে এই কিশোরের অকাল মৃত্যুতে তার সহপাঠী,শিক্ষক,সহ পুরো এলাকা জুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Related posts