পরিমনিকে ধর্ষণ ও হত্যা প্রচেষ্টা কারীর পরিচয় পাওয়া গেছে

ডেস্করিপোর্ট : গতকাল সংবাদ সম্মেলন করে নিজে ধর্ষণ ও হত্যা প্রচেষ্টার স্বীকার হন বলে সাংবাদিকদের জানান বাংলাদেশের জনপ্রিয় চিত্র নায়িকা পরিমনি।

সেই ধর্ষণ ও হত্যা প্রচেষ্টাকারী কুঞ্জ ডেভেলপারস এর চেয়ারম্যান এবং উত্তরা ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট নাসির ইউ মাহমুদ বলে সাংবাদিকদের জানান পরিমনি। সে একজন ধর্ণাঢ্য এবং প্রভাবশালী ব্যবসায়ী। পুলিশের আইজিপি বেনজির আহমেদের সাথে তার সখ্যতা রয়েছে ।

চারদিন আগে একটি অনুষ্ঠানে নায়িকা পরীমনিকে চেতনানাশক কিছু খাওয়ানোর পর ধর্ষণের চেষ্টা করেন নাসির , তেমনটিই আজ জানিয়েছেন পরীমনি নিজেই। নাসিরকে এ কাজে সহযোগিতা করেন আরো ৩ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি।

কিভাবে ঘটেছিলো ঘটনাটি সেটি অনুসন্ধানে জানা যায় পরীমনি অমি নামের তার এক বন্ধুর সাথে গত বুধবার রাত ১২ টার দিকে উত্তরার বোট ক্লাবে যান। উত্তরা বোট ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট হলেন নাসির ইউ মাহমুদ। তাছাড়া বর্তমানে এই বোট ক্লাবটির পরিচালনার দায়িত্বে আছেন পুলিশের প্রধান বেনজির আহমেদ। সেদিন চারজন মদ্যপ ব্যক্তি পরীমনিকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন। চড়-থাপ্পড় মারেন। গায়ে আঘাত করেন। এক পর্যায়ে একজন তাকে নেশাদ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণের চেষ্টাও করেন।যিনি ধর্ষণের চেষ্টা করেন তিনিই হলেন অভিযুক্ত নাসির ইউ মাহমুদ। নাসির সেদিন হঠাৎ করে সেখানে কিভাবে আসেন অথবা বিষয়টি পূর্বপরিকল্পটি ছিল কি না এমন প্রশ্নের উত্তরে পরীমনি জানান বিষয়টি পূর্বপরিকল্পটি বলেই তার ধারণা।

Related posts