বরুমচড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক যুবকের মৃত্যু!

নিজস্ব প্রতিনিধি
সারা আনোয়ারা।

আনোয়ারার বরুমচড়া ইউনিয়নে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মোঃ জামাল (২৮) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার ৫নং বরুমচড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড নলদিয়া গ্রামের সোলাইমানের প্রথম পুত্র।
শুক্রবার ভোরে উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নে নলদিয়া গ্রামে বাঘমারার চরে চলমান নির্মাণাধীন প্রকল্পে (গুচ্ছ গ্রাম) খালের পাশে এ লাশের সন্ধান পাওয়া যায়। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আনুমানিক ৮ টার দিকে ঘর থেকে কোন একটা কাজের উদ্দেশ্যে বের হয় জামাল। রাতে ঘরে আসতে দেরি হওয়ায় খোঁজাখুঁজি শুরু করে তার পরিবার। পরবর্তীতে আজ ভোরে এলাকার কয়েকজন লোক নলদিয়ার চরে খালের পাশে তার লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়।

ঘটনার স্থানে এসে ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে গেয়ে আনোয়ারা জোনাল অফিসের ডিজিএম আবুল মুবিদ চৌধুরী জানান বাঘমারা চরে চলমান নির্মাণেধীন শ্রমিকদের অবহেলার কারণে এই ঘটনা গঠে। আনোয়ারা থানার এএসআই ওমর থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন ৫ নং বরুমচড়া ইউনিয়নে নলদিয়া গ্রামের বাঘমারার চরে সরকারি আশ্রয়ন কেন্দ্রে চলমান নির্মাণাধীন প্রকল্পে বৈদ্যুতিক খুঁটির থেকে সংযোগ তারের আরতিং’টি একটি রড দিয়ে পাশে খালে সংযোগ দেয়া হয়। পরিবর্তীতে খালে যখন ভাটা আসে তখন রডটির সাথে পানির সংযোগ না পেয়ে এই দূর্ঘটনা হয়। খবর পেয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমেদ, বরুমছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহাদত হোসেন চৌধুরী, লাশ দাফন কাফনের জন্য ইতিমধ্যে নগদ ১০ হাজার টাকা এবং নির্মাণধীন প্রকল্পের কাজ থেকে একটি ঘর দিবে বলেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন চৌধুরী এবং উপজেলা প্রশাসন পক্ষ থেকে শেখ জোবায়ের আহমেদ নগদ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন।

Related posts