বর্ধিত অংশে যানযট কমবে নাকি বসবে ফুটপাত বাজার কিংবা পার্কিং !!

শওকত আলী পারভেজ ।।
চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার অন্তর্গত আনোয়ারা উপজেলার প্রাণকেন্দ্র হচ্ছে চাতরী চৌমুহনি বাজার। আনোয়ারা ১১ টি ইউনিয়নের মানুষ ছাড়া ও উপজেলা বাঁশখালী, সাতকানিয়ার,চন্দনাইশ,পেকুয়ার অধিকাংশ মানুষের চলাচল করতে হয় এই চাতরী চৌমুহনির উপর দিয়ে। কক্সবাজারের বিকল্প রাস্তা হিসেবে ও যেতে হয় চাতরী চৌমুহনি বাজারের উপর দিয়ে।


এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি রাস্তার সংযোগ স্থল, বিগত মাস খানেক আগে যানযট নিরসনের জন্য বাড়ানো হচ্ছে রাস্তা দু’পাশ ।

বর্ধিত এই রাস্তায় কি যানযট কমবে নাকি টাকার বিনিময়ে ফুটপাত কিংবা গাড়ি পার্কিং? এমন প্রশ্ন এখন সাধারণ জনগনের মুখে। যতটুকু কাজ সম্পন্ন হলো তাতেই বসতে শুরু করেছে ফুটপাত,পার্কিং শুরু করছে ছোট বড় সকল ধরনের গাড়ী।
তাছাড়া বর্তমানে বিশ হাজারের অধিক কর্মচারী সম্পন্ন গার্মেন্টস কে. এস.আই এ যেতে হয় চৌমুহনির উপর দিয়ে, যখন ছুটি হয় তখন ৫-৬ জন ট্রাফিক পুলিশ ও নিয়ন্ত্রনে আনতে পারে না সন্ধ্যা কালীন গাড়ী গুলোকে, ফলে ঘরমুখি মানুষকে পোহাতে হয় দীর্ঘ যানযটের ভুগান্তি ।

আনোয়ারাবাসী আশা করছেন কতৃপক্ষ বিষয়টি বিশেষ বিবেচনায় দেখবেন এবং বর্ধিত রাস্তা ফুটপাত কিংবা গাড়ি পার্কিং মুক্ত রেখে যানজট নিরসনে সহায়তা করবে

Related posts

Leave a Comment